Category Archives: Social Awareness

কী নৃশংসতা ঘটছে রোহিঙ্গাদের সাথে! জানা উচিৎ আপনারও। (Rohingya Muslims Torture in Rakhine, Myanmar)

Rohingya Muslims Torture in Rakhine, Myanmar

প্রকৃতপক্ষে মিয়ানমারে রোহীঙ্গাদের সাথে কী নৃশংসতা ঘটছে তা সঠিকভাবে জানা প্রায় অসম্ভব। কারণ কেউ যে স্বাধীনভাবে সেখানে গিয়ে প্রকৃত ঘটনা জানবেন, তার সব পথ বন্ধ রেখেছে মিয়ানমার সরকার। কেউ বলছেন সেনাবাহিনী সেখানে জাতিগত নির্মূল অভিযান চালাচ্ছে। কারও দাবি সেখানে গণহত্যা চলছে। কিন্তু মিয়ানমারের সেনাবাহিনী এবং আং সান সুচিএসব দাবি প্রত্যাখ্যান করছেন। তারা বলছেন, সেখানে পুলিশের ওপর রোহিঙ্গা জঙ্গীরা যে হামলা চালিয়েছিল, তাদের বিরুদ্ধে সন্ত্রাস বিরোধী অভিযান চলছে। যেসব রোহীঙ্গা শরণার্থী প্রাণ নিয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে তাদের ভাষ্য এবং মিয়ানমারে এখনো অবস্থানরত কিছু রোহীঙ্গাদের পাঠানো ভিডিও ও চিত্র অনুযায়ী আজ আপনাদের জানাবো- প্রকৃতপক্ষে কী ঘটছে সেখানে। সাথে আছি আমি-আজিজুর রহমান দুলাল।

 

Advertisements

কোরবানির টাকায় বন্যার্তদের সাহায্য ও আমাদের করণীয়।

কোরবানির টাকা বন্যার্তদের দান করা কতটুকু যুক্তিযুক্ত?

এই মুহূর্তে ভয়াবহ বন্যার কবলে বাংলাদেশের ২৭টি জেলা।  এ পর্যন্ত ৫৭ লক্ষ ১৮ হাজার বানবাসি মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ও কয়েক লাখ মানুষ পানিবন্দি অবস্থায় মানবেতর জীবনযাপন করছে। এ মুহূর্তে প্রয়োজন অসহায় মানুষদের সহায়তায় জন্য কোটি কোটি টাকার ত্রাণ সামগ্রী। অনেকেই কুরবানি না করে সেই অর্থ বন্যার্তদের মাঝে বিলিয়ে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। অন্যদিকে এ ব্যাপারে দেশের শীর্ষ মুফতিয়ে কেরাম বলছেন, কুরবানি না দিয়ে কুরবানির অর্থ বন্যার্তদের মাঝে বিলিয়ে দিলে কুরবানি আদায় হবে না। তবে দানের সওয়াব পাওয়া যাবে।  কিন্তু কুরবানির ওয়াজিব বিধান লঙ্গন হবে। এই মূহুর্তে আমাদের মতো সাধারণ মুসলিমদের করণীয় কী? আসুন স্পর্শকাতর এ বিষয়টি সম্বন্ধে যৌক্তিক ব্যাখ্যা জানার মাধ্যমে কনফিউশন দূর করি।
** কমেন্ট বক্সে জানাতে পারেন আপনার মতামত এবং ভিডিওটি শেয়ার করে অন্যদেরও সচেতন হতে সহায়তা করুন।
** আর এই চ্যানেল থেকে প্রকাশিত পরবর্তী লেটেস্ট ভিডিও পেতে Subscribe করে নিন।

প্রতারণা, আহসান হাবিব পেয়ার ও আমাদের করণীয় (Fraud, Ahsan Habib Pair and What to do)

Fraud, Ahsan Habib Pair and What to do

Ahsan Habib Pair (Ahp TV)
আহসান হাবিব পেয়ার, একজন জনপ্রিয় ইউটিউবার। তিনি দেশের বিভিন্ন জায়গায় ছুটে বেড়িয়েছেন, পাশে দাড়িয়েছেন দরিদ্র অসহায় মানুষের। তার মতো করে হতদরিদ্র ও অসহায়ের পাশে দাঁড়ানো মানুষের সংখ্যা আজকাল খুব একটা দেখা যায় না। তিনি প্রথমে ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়ে অসহায় মানুষকে কিছু টাকা-পয়সা দান করতেন, এটি হলো তার প্রাথমিক ইনভেস্ট। পরবর্তীতে ইউটিউবে এই ভিডিও প্রকাশের সময় ভিডিওর মধ্যে তার নিজের মোবাইল নম্বর, মোবাইল ব্যাংকিং নম্বর, ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বর ইত্যাদি দিয়ে দিতেন। এরপর তার ঐ অ্যাকাউন্টগুলোতে যতো টাকা-পয়সা যেতো তার কোনোটিই অসহায় মানুষগুলোর কাছে পৌছতো না। এই ব্যবসায় তিনি বেশ খানিকটা সফলতাও অর্জন করেছিলেন। কিন্তু  কদিন আগেই অর্থ আত্মসাৎ, সাইবার ক্রাইম, নারী কেলেংকারীসহ আরো কয়েকটি মামলায় তাঁকে গ্রেফতার করে আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী। এছাড়াও সম্প্রতি যমুনা টিভির ইনভেস্টিগেশনে বেরিয়ে আসে তার নানা অপকর্মের চিত্র। মূলত আমাদের দেশের অধিকাংস মানুষ অত্যন্ত নরম চিত্তের অধিকারী, দয়াশীল ও সহমর্মী। আমরা সহজেই অন্যকে বিশ্বাস করে ফেলি, অন্যদেরকে অবিশ্বাস করলেও অন্তত আলেম-ওলামাদেরকে আমরা সাধারণতঃ অবিশ্বাস করি না। অত্যন্ত সুকৌশলে সেই সুযোগটিকেই কাজে লাগিয়েছিলেন আহসান হাবিব পেয়ার। এছাড়াও তিনি বিভিন্ন হৃদয়স্পর্শী ইসলামী গান ও মায়ের গান গেয়ে মানুষের অন্তরে জায়গা করে নিয়েছিলেন। তার নানা অপকর্মের চিত্র আজ যখন জাতির সামনে প্রকাশিত তখন আজ আমরা অনেকেই আলেমদেরকে ঘৃণা করতে শুরু করেছি। অনেকেই বলছেন- হুজুর মানেই ভন্ড, দাড়িওয়ালা মানেই জঙ্গী, প্রতারক, ঠকবাজ। অথচ হাদীস শরীফে এসেছে আলিমগণ নবীদের উত্তরাধিকারী। এই অসৎ মানুষগুলোর কারণে আজ অনেকেই অসহায় মানুষকে আর্থিক সহযোগীতা করতেও ভরসা পান না। কিন্তু দুই-পাচজন আলেম নামের জালেমের প্রতারণার দায়ভার আমরা ঢালাওভাবে সমগ্র আলেম সমাজের উপর চাপিয়ে দিতে পারি না। আমরা মানুষকে সাহায্য করাও বন্ধ করে দিতে পারি না। এই চ্যানেল থেকে প্রকাশিত পরবর্তী ভিডিও পেতে Subscribe করে সাথেই থাকুন। ভালো থাকুন, ভালো রাখুন।