নুহাশ পল্লী- কেনো যাবেন? কিভাবে যাবেন? বিস্তারিতঃ (Nuhash Polli by Humayun Ahmed, Gazipur)

Nuhash Polli by Humayun Ahmed, Gazipur

হুমায়ুন আহমেদের নুহাশপল্লী যেনো এক শান্তিপুরি।
হুমায়ুন আহমেদ এবং তাঁর প্রথম স্ত্রী গুলতেকিন আহমেদের একমাত্র আদরের সন্তান নুহাশের নামে নুহাশপল্লীর নামকরণ করা হয়েছে। ৪০ বিঘা জায়গার উপর মনের মাধুরি মিশিয়ে নুহাশ পল্লীকে এক স্বপ্নজগতের মতো করে গড়ে তুলেছেন বাংলা সাহিত্য অঙ্গনের কিংবদন্তী নায়ক হুমায়ূন আহমেদ।
২৫০ প্রজাতির দূর্লভ ঔষধি, ফলজ, বনজসহ নানা প্রজাতির গাছ, স্যুটিং স্পট, দিঘি আর তিনটি সুদৃশ্য বাংলো, “মা ও শিশু” নামের একটি সুন্দর ভাস্কর্য ছাড়াও আরও সুন্দর এবং মজার বেশ কিছু ভাস্কর্য রয়েছে এখানে। রয়েছে সুন্দর সুইমিং পুল, হুমায়ূন আহমেদের আবক্ষ মূর্তি, দীঘি লীলাবতী, পদ্মপুকুর, পাথরের মৎসকন্যা, প্রাগৈতিহাসিক যুগের প্রাণীদের বেশ কিছু মূর্তিসহ দৃষ্টিনন্দন নানান সব স্থাপত্য।
♦ জনপ্রতি প্রবেশ ফি-২০০ টাকা
♦ যেভাবে যাবেনঃ ঢাকা-গুলিস্তান থেকে ছেড়ে আসা প্রভাতি-বনশ্রী বাসে উঠে নেমে যান গাজীপুরের হোতাপাড়া বাজারে, সেখান থেকে টেম্পু বা অটোতে করে সোজা চলে যেতে পারবেন নুহাশ পল্লীতে। নুহাশ পল্লীতে ভালো খাবারের দোকান পাবেন না, তাই হোতাপাড়া বাজার থেকেই নিয়ে নিন খাবার বা অন্য কিছু।
** ইট-পাথর আর যানজটে নাকাল কর্মব্যস্ত শহরে বাস করতে করতে যদি আপনি ক্লান্তি অনুভব করেন, তাহলে কোনো এক ছুটির বিকেলে বুক ভরে নিঃশ্বাস নিয়ে আসুন প্রকৃতির সব উপাদান দিয়ে সাজানো নুহাশ পল্লী থেকে **
আপনার ভ্রমণ শুভ হোক।

 

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

w

Connecting to %s