Life Story of Colonel Sanders (Founder of KFC) -A Story of Great Inspiration in Bangla

Life Story of Colonel Sanders (Founder of KFC) -A Story of Great Inspiration in Bangla

The story of Colonel Sanders (Owner & Founder of KFC). There have a great motivation and inspiration in his life. He failed much time. Once upon a time after his retirement, he tried to make suicide. But he changed his decision. he decided to change his life when he is 65. Then he has founded KFC and he became Multi-Billionaire. We can take a lesson from his life story to make us successful.

..:: Please Like, Comment, Share & SUBSCRIBE our Channel ::..

কেএফসি রেস্টুরেন্ট এর প্রতিষ্ঠাতা।

৫ বছর বয়সে তিনি তার বাবাকে হারানোর পর থেকে তিনি একের পর এক ব্যার্থ হয়েছেন অসংখ্যবার।

৬৫ বছর বয়সে তিনি অবসর গ্রহণ করেন

রিটায়ারমেন্টের প্রথম দিন তিনি সরকারের পক্ষ থেকে ১০৫ ডলারের চেক গ্রহণ করেন।

তিনি চিন্তা করতে থাকেন এই বৃদ্ধ বয়সে এসে ১০৫ ডলার মাসিক ভাতায় তিনি কীভাবে তাঁর বাকী জীবন পরিচালনা করবেন?

তিনি হতাশ হয়ে গেলেন এবং ভাবতে থাকলেন আমার পুরো জীবনটাই ব্যার্থ!

এবং তিনি আত্মহত্যা করার সিদ্ধান্ত নিলেন।

তিনি সুইসাইড লেটার ও অছিয়তনামা লেখার জন্য একটি গাছের নিচে বসলেন।

কিন্তু তিনি লেখা শুরু করলেন তিনি তাঁর জীবনে কী কী করতে পারতেন,

তিনি বুঝতে পারলেন, জীবনে অনেক কিছুই করার ছিলো, যা আমি করতে পারিনি। তিনি অনুধাবন করলেনঃ এমন কিছু বিষয় সে পারদর্শী, যা অন্য কেউ তাঁর মতো করে করতে  পারে না। তিনি অন্য সবার চেয়ে এটি ভালোভাবে করতে পারেন।।

এবং সেটি হলো- রান্নাবান্না। হ্যা, তাঁর স্পেশাল চিকেন।

এরপর তিনি ফিরে যান। সিদ্ধান্ত নেন ঘুরে দাড়ানোর।

তিনি ফ্রাইয়ার ও রান্নার দ্রব্যাদি কেনার জন্য ৮৭ ডলার ধার করেন।

এরপর তিনি তাঁর ইউনিক চিকেন ফ্রাই তৈরি করে তাঁর প্রতিবেশীদের নিকট বিক্রি করার চেষ্টা করতে থাকেন।

সেই সাথে তিনি রেস্টুরেন্টের লাইসেন্স পাওয়ার জন্য চেষ্টা করতে থাকেন। সেখানেও তিনি ব্যার্থ হন বেশ কয়েকবার, তবু তিনি হাল ছাড়েননি।

অবশেষে এলো সেই কাঙ্ক্ষিত সময়।

জন্ম হলো কেএফসি KFC

৮৮ বছর বয়সে কলোনেল স্যান্ডার্স মাল্টি বিলিয়নিয়ার হন এবং KFC বিশ্ব দরবারে হয়ে ওঠে একটি জনপ্রিয় ব্র্যান্ডের নাম।

কেএফসি এখন সমগ্র বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম চেইন রেস্টুরেন্ট।

এখন বিশ্বের ১২৩ টি দেশের প্রায় ২০,০০০ এরও বেশি স্থানে জায়গা করে নিয়েছে কেএফসি।

আপনি কতোবার ব্যার্থ হয়েছেন, সেটি ভুলে যান। শুধু আপনার লক্ষ্যে অবিচল থাকুন এবং সেটিকে সমৃদ্ধ করুন অন্য সবার চেয়ে আলাদাভাবে। আপনিই পারবেন, অবশ্যই পারবেন। সফলতা অপেক্ষা করছে আপনারই জন্য।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s